আজ থেকে শুরু করুন। কথা দিচ্ছি আপনিও পারবেন খুব সহজে ফাইভার মার্কেটপ্লেস থেকে আয় করতে। (পর্ব-২) | টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ
Profile
টিচ এলার্ম

মোট এলার্ম : 2 টি

nothing to say

আমার এলার্ম পাতা »

» আমার ওয়েবসাইট : https://teachalarm.blogspot.com/

» আমার ফেসবুক : teachalarm

» আমার টুইটার পাতা : teachalarm


স্পন্সরড এলার্ম



আজ থেকে শুরু করুন। কথা দিচ্ছি আপনিও পারবেন খুব সহজে ফাইভার মার্কেটপ্লেস থেকে আয় করতে। (পর্ব-২)
FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন
Share Button

টিচ এলার্ম বিডি এর পক্ষ থেকে সবাইকে জানায় আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

কেমন আছেন সবাই। আশা করি সবাই ভালো আছেন। ভালো থাকবেন্ ই না কেন ? প্রযুক্তির সাথে থাকলে কি কেউ খারাপ থাকতে পারে।

তো যাই হোক শুরু করি আজকের টিউন।

আজ আমি  ফাইভার একাউন্ট এ কি করা উচিত আর কি করা উচিত নয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করার চেস্টা করবো। তবে বলে রাখি যারা আমার টিউন গুলো পড়ে কাজ করবেন তারা এখন ফাইভারে একাউন্ট খুলবেন না। আমি যখন বলব তখন একাউন্ট ক্রিয়েট করবেন। আমি আগেই বলেছি যে ফাইভার কিন্তু খুবই সেন্সেটিভ মার্কেটপ্লেস।

কি করা উচিত নয় ঃঃ

ফাইভারে আপনি যখনই কোন একাউন্ট খুলবেন তখন আপনার ম্যাক অ্যাড্রেস এবং আইপি অ্যাড্রেস সাপোর্ট টীমদের কাছে চলে যাবে।

ফাইভারে কখনই একটি অপারেটিং সিস্টেম দিয়ে একের অধিক একাউন্ট খুলবেন না। কোন কারনে যদি আপনার একাউন্ট ডিসেবল হয়ে যায় তাহলে প্রথমে হেল্প সেন্টারে যোগাযোগ করুন যদিও তারা আপনার একাউন্ট ফিরে দেবে না কিন্তু যদি আপনার একাউন্টে কোন ব্যালেন্স থাকে তারা সেটা ৪৫ দিন পর আপনাকে ফেরত দিয়ে দেবে।

কখনই আপনার একাউন্ট এক জায়গায় লগিন থাকা অবস্থায় অন্য কোন কম্পিউটার/ফোন থেকে লগিন করবেন না তাহলে সাথে সাথে কোন সতর্কতা ছাড়াই আপনার একাউন্ট ডিসেবল হয়ে যাবে।

যারা ব্রডব্যান্ড নেট ব্যবহার করেন তারা যদি কখনো আপনার নেট কানেকশন চেঞ্জ করেন তাহলে অবশ্যঅই ফাইভার সাপোর্ট টিমকে জানাবেন তা না হলে আপনার একাউন্ট ৮০% সম্ভাবনা থাকবে ডিসেবল হয়ে যাওয়ার। মডেম ব্যবহার কারীদের ক্ষেত্রে কোন সমস্যা নায়।

নেট কানেকশন বারবার ডিস্কানেক্ট করবেন না।

চেস্টা করবেন সব সময় একটা কম্পিউটার থেকেই আপনার ফাইভার একাউন্ট লগিন করতে।

কি করা উচিৎ ঃঃ

যদি আপনার একাউন্ট ডিসেবল হয়ে যায় তাহলে প্রথমে আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজ দিন এবং নতুন একাউন্ট খুলুন।

সব সময় চেস্টা করুন একটা কম্পিউটার এবং একই ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করতে।

একই জায়গা থেকে লগিন করার চেস্টা করুন।

ফাইভার একাউন্ট খোলার সময় সম্পুর্ন নতুন ইউজার নেম ব্যবহার করুন এবং ভ্যালিড ইমেইল ব্যবহার করার  চেস্টা করবেন।

আপনার একাউন্ট পিকচার যেন খুবই প্রফেশনাল হয় যেন বায়ার আপনার পিকচার দেখেই বুঝতে পারে যে হ্যা একে দিয়ে হবে।

 

আজ এই পর্যন্তই।

মনে করেছিলাম আজ গিগ নিয়ে আলোচনা করব কিন্তু ফাইভার সম্পর্কে এই বিষয় গুলো না জানালেই নয়। হয়তো অনেকে প্রথমেই একাউন্ট খোলার চেস্টা করতে পারেন এই জন্যই এই বিষয় গুলো নিয়ে আলোচনা করলাম।

যারা এখনো আমার ইএটিউব চ্যানেলটি সাবস্কাইব করেন নি তারা  খুব দ্রত সাবস্ক্রাইব করে নিন।

ফাইভারের সমস্ত টিউটোরিয়াল আমি আপনাদের জন্য ইউটিউবে আপলোড করে দেব পরবর্তী টিউন করার আগেই।

সাবঙ্ক্রাইব করতে     এখানে     যান।

 

যে কোন সমস্যার জন্য আমাকে   ফেসবুকে     জানাতে পারেন।

আমার টিউন গুলো আমি প্রতিদিন অল্প করে আলাদা আলাদা টপিকস নিয়ে আলোচনা করব  । বেশি লিখলে আপনারাও ধৈর্য্য হারা হয়ে পড়বেন এবং আমিও লিখতে লিখতে বোরিং হয়ে যাবো।

আপনার আপনাদের মতামত না জানালে তো লেখার আগ্রহ হারিয়ে ফেলবো। কিভাবে বুঝবো যে আপনারে কিছু শিখছেন। সো টিউমেন্টে আপনাদের মতামত জানাতে ভুলবেন না।

আগামী পর্বে আবার দেখা হবে। ততদিন সবাই ভালো থাকবেন।

ধন্যবাদ সাথে থাকার জন্য। (1584)

Share Button
  

FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন

এলার্ম বিভাগঃ আউটসোর্সিং

এলার্ম ট্যাগ সমূহঃ > > > > > > >

Ads by Techalarm tAds

এলার্মেন্ট করুন

You must be Logged in to post comment.

© টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ | সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত

জেগে উঠো প্রযুক্তি ডাকছে হাতছানি দিয়ে!!!


Facebook Icon