সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO)করুন।।।পর্ব-০৪!!! গুরুত্বপূর্ণ কিছু আলোচনা-১ | টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ
Profile
তাহমিদ হাসান

মোট এলার্ম : 279 টি

দেখিতে গিয়াছি পর্বতমালা,,, দেখিতে গিয়াছি সিন্ধু,,, দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া,,, ঘর হতে শুধু দু’পা ফেলিয়া,,, একটি ধানের শীষের উপর একটি শিশির বিন্দু। !!!!!!!!! তাই টেকএলার্মবিডিতে এসেছি জানার জন্য।

আমার এলার্ম পাতা »

» আমার ওয়েবসাইট : http://www.graphicalarm.com

» আমার ফেসবুক : www.facebook.com/tahmid.hasan3

» আমার টুইটার পাতা : www.twitter.com/tahmid1993


স্পন্সরড এলার্ম



সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (SEO)করুন।।।পর্ব-০৪!!! গুরুত্বপূর্ণ কিছু আলোচনা-১
FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন
Share Button

আসসালামু আলাইকুম,

সবাই আবার স্বাগতম আমার নিয়মিত এসইও এলার্মে। এলার্ম করার আগে আপনাদের কাছে আমার একটা কমপ্লেন আছে। কমপ্লেন টা হল আমি আপনাদের কাছ থেকে কোন প্রকার সাড়া পাচ্ছি না। আমার এলার্ম ভাল হচ্ছে না খারপ হচ্ছে কিছুই জানাচ্ছেন না। আপনারা না জানালে আমি কি করে বুঝব আমার এলার্ম আপনাদের কেমন লাগছে। এই এলার্ম কেমন হলো জানাবেন কিন্তু। ভাল হচ্ছে না খারাপ হচ্ছে।

আজকে আমি আপনাদেরকে সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন জগতে ব্যবহৃত হয় এমন কিছু প্রয়োজনীয় শব্দের আলোচনা করব। যেগুলা জানলে আপনারা সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন সম্পর্কে অনেকটা ধারনা হবে। সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন মূলত ২ ভাবে ব্যবহৃত হই।

১) হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO)।

২) ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black hat SEO)।

হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) আবার ২ প্রকারঃ (১) অনপেজ অপটিমাইজেশন।

(২) অফপেজ অপটিমাইজেশন।

যাই হক আজকে অনপেজ এর অফপেজ সম্পর্কে আলোচনা করব না। আজ হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) এবং  ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black hat SEO) সম্পর্কে আলোচনা করব। নিচে সুন্দর ভাবে তুলে দিলাম।

**** ১) হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO): সার্চ ইন্জিনের গাইডলাইন বা নীতিমালা ভঙ্গ না করে যদি SEO করেন তাহলে এ ধরনের অপটিমাইজেশনকে বলে হোয়াইট হ্যাট এসইও।এসব গাইডলাইন বা নীতিমালার মধ্যে সবচেয়ে গুরত্বপূর্ন নীতিটি হচ্ছে ওয়েবসাইট মানুষের জন্য তৈরী করুন যা উপকারী,সার্চ ইন্জিনের জন্য নয়।অন্যান্য নীতিমালার মধ্যে আছে ব্যাকলিংক,লিংক পপুলারিটি,কিওয়ার্ড গবেষনা,লিংক বিল্ডিং ইত্যাদি।হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) কে এথিকাল এসইও (Ethical SEO) বলা যায়।  হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) হচ্ছে সার্চ ইন্জিন অপটিমাইজেশন এর প্রান বলা যাই। 

ব্যাকলিংক (Backlink):অন্য একটা সাইটে আপনার সাইটের লিংক থাকলে এটা আপনার সাইটের জন্য ব্যাকলিংক।হতে পারে এই লিংক আপনার সাইটের হোমপেজ বা অন্য কোন পেজ এর লিংক।ব্যাকলিংক কে ইনকামিং লিংক বা ইনবাউন্ড লিংকও বলে। এটা হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) এর মধ্যে।

আউটবাউন্ড লিংক (Outbound link):আউটবাউন্ড লিংক হচ্ছে ব্যাকলিংকের বিপরীত অর্থ্যাৎ অন্য সাইটের লিংক যদি আপনার সাইটে থাকে।আউটবাউন্ড লিংক কে আউটগোয়িং লিংকও বলে।এটা ও হোয়াইট হ্যাট এসইও (White hat SEO) এর মধ্যে।

কিওয়ার্ডঃ কি ওয়ার্ড হল ইনডেক্স একটা শব্দ, বিষয় শব্দ, বিষয় শিরোনাম, বা তথ্য আহরণ মধ্যে বর্ণনাকারী। একটি শব্দ যে একটা ডকুমেন্টের বিষয়ের মূল captures. । আসলে মুল কথা হচ্ছে ছোট একটা শব্দের মধ্যে দিয়ে অনেক বড় জিনিষের সমাহার থাকে। এইটা আসলে মুখে ছাড়া লিখে ভাল ভাবে আপনাদের সামনে উপস্থাপনা করা আমার পক্ষে কষ্টকর হয়ে জাচ্ছে।

ইন্টারনাল লিংক (Internal Link): এটা হচ্ছে আপনার সাইটেই এক পেজে অন্য পেজের লিংক।এটা অত্যন্ত গুরত্বপূর্ন ।যেমন আপনার সাইট এ যদি ধারাবাহিক টিউটোরিয়াল থাকে তাহলে একপেজ থেকে তারপরের পেজে যাওয়ার জন্য আগের পেজে এনকর টেক্সট দিয়ে লিংক দিবেন।এটা আপনার সাইটের ব্যাকলিংক হিসেবে কাজ করবে।এতে পেজর‌্যাংক বাড়ে।উইকিপিডিয়ার সাইটে দেখবেন প্রতি লাইনেই কতগুলি করে তাদেরই সাইটের লিংক থাকে।

কিওয়ার্ড ডেনসিটি (Keyword Density):একটা পেজে কোন একটা নির্দিষ্ট কিওয়ার্ড কতবার ব্যবহৃত হয়েছে এটা কিওয়ার্ডটির ডেনসিটি।

লিংক পপুলারিটি (Link Popularity):এটা হচ্ছে একটা সাইটরে মান কিরকম তা নির্নয়ের জন্য,এটা কোয়ালিটি ইনবাউন্ড লিংকের (ব্যাকলিংক) উপর ভিত্তি করে হয়ে থাকে।সার্চ ইন্জিনগুলি লিংক পপুলারিটির উপর ভিত্তি করে তাদের এলগরিদম তৈরী করে থাকে যে একটা সাইট সার্চ ইন্জিন রেজাল্ট পেজে (SERP) কোথায় থাকবে।

গেটওয়ে বা ডুরওয়ে পেজ (Doorway page): এটা হচ্ছে এমন পেজ বানানো যেখানে খুব অল্প কয়েকলাইন থাকে আর এসব লাইনে শুধু কিওয়ার্ড থাকে ফলে সার্চ র‌্যাংকিং বাড়ে কিন্তু ইউজারদের জন্য তেমন কোন তথ্য থাকেনা।এই পেজে গেলে অন্য কোন পেজের লিংক থাকে বা রিডাইরেক্ট করে অন্য পেজে নিয়ে যায়।এটাকে এন্ট্রি পেজ,পোর্টাল পেজ,জাম্প পেজ,ব্রিজ পেজ ইত্যাদি বলা হয়ে থাকে।এ

****২) ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black hat SEO): এটা হোয়াইট হ্যাটের বিপরীত অর্থ্যাৎ সার্চ ইন্জিগুলির দেয়া নিয়মানুযায়ী অপটিমাইজ করলেননা।ব্ল্যাক হ্যাট এসইও টেকনিকের মধ্যে আছে কিওয়ার্ড স্টাফিং,ক্লকিং,অদৃশ্য টেক্সক্ট ইত্যাদি।একে আনএথিকাল (Unethical SEO) এসইও বলা যায়।

ক্লকিং (Cloaking): এটা এমন একটা টেকনিক যেটা সার্চ ইন্জিনকে এক ধরনের কনটেন্ট দেখাবে আর ইউজারকে অন্যরকম কনটেন্ট দেখায়।এই পদ্ধতিটি তে যখন সার্ভারে কোন পেজের জন্য রিকোয়েস্ট যায় তখন আইপি এড্রেস বা ইউজার এজেন্ট দেখে বুঝে ফেলে এটা কোন সার্চ ইন্জিনের বট/ক্রাউলার/স্পাইডার/স্কুটার নাকি মানুষ।যখন দেখে স্পাইডার তখন এক ধরনের পেজ দেখায় আর মানুষ হলে আরেক ধরনের পেজ। এইটা  ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black hat SEO)।

লিংক ফার্ম (Link farm): লিংক ফার্ম হচ্ছে বেশ কিছু ওয়েবসাইট খুলে প্রতিটি সাইটের লিংক প্রতিটি সাইটে দেয়া।ফলে প্রতিটি সাইটের ব্যাকলিংক বৃদ্ধি পেল।এসব ধরা পরলে আপনার সাইটকে স্পামডেক্সিং এ গগনা করবে।

স্পামেডেক্সিং হচ্ছে সার্চ ইন্জিন আপনার সাইটকে এমনভাবে চিহ্নিত করবে যেন আপনি তাদের দেয়া গাইডলাইন ভঙ্গ করেছেন।আপনার সাইটকে যদি সার্চ ইন্জিন স্পামডেক্সিং করে ফেলে তাহলে আপনার পুরো SEO ব্যর্থতায় পর্যবশিত হল।বিভিন্ন কারনে আপনার সাইটকে স্পামডেক্সিং করতে পারে যেমন লিংক ফার্ম করলে,কিওয়ার্ড স্টাফিং করলে,ডুরওয়ে (Doorway pages) পেজ বানালে,ক্লকিং, সোজা কথা ব্ল্যাক হ্যাট এসইও করলে।

কিওয়ার্ড স্টাফিং (Keyword Stuffing):এটা ব্ল্যাক হ্যাট এসইও’র অংশ।ইউজার যেসব কিওয়ার্ড লিখে সার্চ দিতে পারে এধরনের কিওয়ার্ডগুলি দিয়ে পেজ ভর্তি করা অর্থ্যাৎ কিওয়ার্ড ওভারলোডিং।অনেকসময় ইনপুট ট্যাগে hidden এট্রিবিউট দিয়ে এধরনের কিওয়ার্ড ঢুকিয়ে দেয় ফলে ইউজারের কাছে এসব টেক্সট অদৃশ্য থাকে আর সার্চ ইন্জিনকে এসব পড়তে হয়।আবার পেজের রং যা আছে টেক্সটের রংও তাই করে দেয় ফলে ইউজার দেখতে পারেনা কিন্তু সার্চ ইন্জিন দেখে।কিওয়ার্ড স্টাফিংকে অনেক সময় কিওয়ার্ড লোডিং বলা হয়।এইটা  ব্ল্যাক হ্যাট এসইও (Black hat SEO)।

*** ট্রাফিক (Traffic): কোন সাইট কত ভিজিট হচ্ছে এটা হচ্ছে সেই সাইটের ট্রাফিক।কোন সাইটের ট্রাফিক বাড়ছে অর্থ্যাৎ সেই সাইটের ভিজিট বাড়ছে। এই টা কেই ট্রাফিক বলে। অনেকে ট্রাফিক বললে বুজতে পারে না। অবশ্য আমি ও এক সময় বুঝতাম না (হা হা হা হা হা হা)।

আজকে আমরা অনেক কিছু শিখে ফেললাম। আশা করি সবার কাজে লাগবে। এই টা হচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন এর বেসিক। তাই এই বেসিক সম্পর্কে ধারনা না থাকলে সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন শিখা কনভাবে সম্ভব না। আগামী পর্বে কি ভাবে গুগলে কি- ওয়ার্ড দিয়ে সার্চ দিতে হই সেইটা শেখাব। (0)

Share Button
  

FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন

এলার্ম বিভাগঃ এস.ই.ও

এলার্ম ট্যাগ সমূহঃ > > >

Ads by Techalarm tAds

এলার্মেন্ট করুন

You must be Logged in to post comment.

© টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ | সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত

জেগে উঠো প্রযুক্তি ডাকছে হাতছানি দিয়ে!!!


Facebook Icon