আপনার পিসিকে পরিষ্কার ও দ্রুতগতিসম্পন্ন করতে আপনাদের কাছে নিয়ে এলাম ৩টি সফটওয়্যার | টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ
Profile
ইয়াসমিন রাইসা

মোট এলার্ম : 236 টি


আমার এলার্ম পাতা »

» আমার ওয়েবসাইট :

» আমার ফেসবুক :

» আমার টুইটার পাতা :


স্পন্সরড এলার্ম



আপনার পিসিকে পরিষ্কার ও দ্রুতগতিসম্পন্ন করতে আপনাদের কাছে নিয়ে এলাম ৩টি সফটওয়্যার
FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন
Share Button
বেশিরভাগ কম্পিউটার ব্যবহারকারীর একটি সাধারন সমস্যা হচ্ছে নতুন পিসি কেনার পর অথবা নতুন করে অপারেটিং সিস্টেম সেটাপ করার করার কয়েক মাস পরই পিসি স্লো হয়ে ব্যবহার অযোগ্য হয়ে যায়। মূলত বিভিন্ন সফটওয়্যারের রেজিস্ট্রি এন্ট্রি এবং জাংক ফাইলে হার্ডড্রাইভ ভর্তি হয়ে যাওয়ার কারনে এই সমস্যা তৈরি হয়। এছাড়াও নিয়মিত হার্ডড্রাইভ ডিফ্র্যাগ না করার কারনে ডাটা রিড করে করতে সময় লাগে ফলে পিসির সার্বিক পারফরমেন্স খারাপ হয়ে যায়।

রেজিস্ট্রি এন্ট্রি সহ সফটওয়্যার পরিপূর্নভাবে আনইন্সটল করা, জাংক ফাইল ডিলিট করা এবং হার্ডড্রাইভ ডিফ্র্যাগ করার জন্য অসাধারন ৩টি সফটওয়্যার নিয়েই এই পোস্ট।

সি ক্লিনারঃ

সি ক্লিনার বা ক্র্যাপ ক্লিনার একটি অসাধারন সফটওয়্যার যা টেম্পোরারি ফাইল, কুকি ইত্যাদি ডিলিট করে যত্নের সাথে। আপনারা অনেকেই হয়ত এটি সম্পর্কে আগেই শুনেছেন এবং ব্যবহারও করেছেন। এটি ব্যবহার করা খুবই সহজ।

CCleaner ওপেন করে ক্লিনার ট্যাব এর অধিনে থাকা অপশন গুলো থেকে যা ডিলিট করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করে ‘রান ক্লিনার’ বাটনে ক্লিক করতে হবে।
এছাড়াও অপ্রয়োজনীয় রেজিস্ট্রি এন্ট্রি মোছার জন্য এতে রয়েছে রেজিস্ট্রি ক্লিনার অপশন। এরজন্য বামপাশে থাকা রেজিস্ট্রি ট্যাবে ক্লিক করে প্রয়োজনীয় অপশন সিলেক্ট করতে হবে। তবে এই কাজটি খুব সাবধানে করতে হবে। কারন এতে করে আপনার সিস্টেমের প্রয়োজনীয় কোন রেজিস্ট্রি কি মুছে গেলে সমস্যা সৃস্টি হতে পারে। তবে এতে রেজিস্ট্রি ব্যকআপ রাখারও একটি অপশন রয়েছে।

রেভো আনইন্সটলারঃ

Revo Uninstaller অনেকটা কন্ট্রোল প্যানেলের Add and Remove Programs এর মতই। তবে এটি এমন কিছু প্রোগ্রাম আনইন্সটল করতে পারে যা ডিফল্ট আনইন্সটলার পারে না।

এর লেআউট অনেকটা এড অর রিমুভ প্রোগ্রামের মতই। তাই এটি ব্যবহার করতে কোন সমস্যা হবেনা আশা করি।

ডিফ্র্যাগলারঃ

বিভিন্ন ফাইল ডিলিট করার পর হার্ডডিস্কের ছোট ছোট ফাঁকা জায়গার সৃস্টি হয়। এর ফলেও পিসি স্লো হয়ে যায়। এই সমস্যা দূর করতে পারে একটি ডিফ্র্যাগার সফটওয়্যার। উইন্ডোজের যদিও একটি ডিফল্ট ডিফ্র্যাগমেন্টেশন প্রোগ্রাম রয়েছে, তবে এটি খুব একটা কার্যকর নয়।

Defraggler একটি ভাল মানের ডিফ্র্যাগমেন্টেশন সফটওয়্যার। এটি খুবই কার্যকর ভাবে হার্ডডিস্ক ডিফ্র্যাগ করতে পারে। এর ফলে হার্ডডিস্কে ছোট ছোট জায়গা খালি থাকেনা এবং বড় ফাইল স্টোর করার জন্য জায়গা তৈরি হয়। এতে করে ডিস্কের গতি বেড়ে যায় এবং পিসির সার্বিক পারফরমেন্সের উন্নতি হয়।
তবে শুধুমাত্র জঞ্জালমুক্ত করলেই পিসি ফাস্ট থাকবে এমনটি ভাবার কারন নেই। সবসময় চেস্টা করা করা উচিত যত কম সফটওয়্যার ব্যবহার করা যায়। অপ্রয়োজনীয় ফালতু সফটওয়্যার ইন্সটল না করাই উচিত।

  (644)

Share Button
  

FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন

এলার্ম বিভাগঃ কম্পিউটার

এলার্ম ট্যাগ সমূহঃ > >

Ads by Techalarm tAds

এলার্মেন্ট করুন

You must be Logged in to post comment.

© টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ | সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত

জেগে উঠো প্রযুক্তি ডাকছে হাতছানি দিয়ে!!!


Facebook Icon