ফেসবুকের জাল একাউন্ট শনাক্ত করুন FakeOff দিয়ে | টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ
Profile
মুহাম্মাদ তাওহিদ গাজী

মোট এলার্ম : 158 টি

মুহাম্মাদ তাওহিদ গাজী

আমার এলার্ম পাতা »

» আমার ওয়েবসাইট :

» আমার ফেসবুক :

» আমার টুইটার পাতা :


স্পন্সরড এলার্ম



ফেসবুকের জাল একাউন্ট শনাক্ত করুন FakeOff দিয়ে
FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন
Share Button

সবাইকে সুভেচ্ছা।আসা করি সবাই ভালো আছেন। সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইডগুলির মাধ্যমে ফেসবুকে জাল অ্যাকাউন্ট চিহ্নিত করতে সাহায্য করে এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরী করেছে, যার নাম FakeOff. এটি ফেসবুকের জাল একাউন্টগুলি অনায়সেই শনাক্ত করতে পারে।আমি আজ এই ফেকঅফ অ্যাপ্লিকেশন নিয়ে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করব। বিশ্বের বৃহত্তম সামাজিক নেটওয়ার্কিং প্ল্যাটফর্মে এটি সেই সকল ফেসবুক ব্যবহারকারীদেরকে নিরাপত্তা প্রদান করে, যারা জাল ফেসবুক ব্যবহারকারীদের স্ক্যাম এর কারনে চিন্তিত। একইসাথে সত্যিকারের নতুন বন্ধুদের শনাক্ত করতেও কাজ করে। সাম্প্রতিক পরিসংখ্যানে দেখা যায় ১.৩৫ বিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে অন্তত 10% খাঁটি নয় এমন দেখাবে . এছাড়া, জাল পরিচয়ের তৈরি এবং নিয়মিত ব্যবহারকারী হিসাবে প্রদর্শিত ব্যবহারকারীদের সংখ্যা লক্ষাধিক ছাড়িয়েছে বহু আগেই জানিয়েছে “FakeOff স্রষ্টা Eliran Shachar পিটিআই” কে । তিনি আরো বলেছেন, এই সকল জাল প্রোফাইল ব্যবহার করে বিভিন্ন ধরনের অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে, এবং মানসিক অপরাধীদের মাধ্যমে কারো সম্মানহানি করাসহ শিশুদের উপর মানসিক ও যৌন নির্যাতন , যার মধ্যে আর্থিক এবং সামাজিক ক্ষতির সম্মুক্ষীন করানো, অন্যায়ভাবে ব্ল্যাকমেইলিং করে সম্পত্তি দখল করে নেওয়া এবং অন্যের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা ভঙ্গ করার কাজেই ব্যবহার হয়ে থাকে। Shachar আরো বলেছেন, “ FakeOff অ্যাপ্লিকেশন সন্দেহভাজন বন্ধুর আচরণ তদন্ত করে এবং একটি নির্দিষ্ট মাত্রার 1-10 বিশ্বাসযোগ্যতা স্কোর অনুযায়ী তাদের অবস্থান নির্ণয়ে অত্যাধুনিক অ্যালগরিদম ব্যবহার করে। এটা প্রত্যেক সন্দেহভাজন ফেসবুক বন্ধুর অস্বাভাবিক কার্যকলাপ চেক করার জন্য টাইমলাইনে কার্যকলাপ 365 দিন পর্যন্ত স্ক্যান করতে থাকে।” তিনি আরো বলেছেন, অ্যাপ্লিকেশনটি সন্দেহভাজন ব্যক্তির টাইমলাইনের অস্বাভাবিক কার্যকলাপ সনাক্ত করে। এটি ব্যবহারকারীকে অনলাইনের কোথাও কোন কিছু চুরি হলে চোরকে খুঁজে বের করতে সন্দেহভাজনের ফটো স্ক্যান করে দিতে পারবে। এছাড়াও, FakeOff সন্দেহভাজনের আইডি তদন্ত করে তথ্য অনুসন্ধান করে এবং একই ধরনের সন্দেহভাজনদের অন্যান্য তদন্তের উপর ভিত্তি করে ব্যবহারকারীকে একটি ফলাফলের হিসাব প্রদান করে।FakeOff সফটয়্যার এখন পর্যন্ত ২মাস ধরে ব্যবহার হয়ে আসছে।এদের এ পর্যন্ত ১৫০০০ ওভার ব্যবহারকারী আছে । তিনি এ সম্পর্কে আরও বলেন, “ পরিচালিত তদন্তে করে দেখা গেছে যে 24 % ব্যবহারকারীর একাউন্টই জাল। একটি জাল প্রোফাইল অত্যন্ত জটিল হতে পারে।তবে ফেক অফ ওই ব্যবহারকারীদের খুঁজতে সাহায্য করে। আমরা যারা ফেক অফ ব্যবহার করিনা, আমরা ছবির স্ক্যান ফলাফল থেকে চূড়ান্ত ফলাফল জানতে পারিনা, কিন্তু ফেক অফ ইউজারেরা খুব সহজেই তা পারে। প্রতিষ্ঠানটি বলেছে যে ফেসবুকের প্রায় ৭.৯% একাউন্ট হুবুহু নকল করে ব্যবহার করা হচ্ছে এবং ১.২% থেকে ২.১% পর্যন্ত একাউন্ট অনাকাঙ্খিতভাবে সাইবারক্রিমিনালদের দ্বারা ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ফেসবুকের মতে, সামাজিক নেটওয়ার্কিং সাইটের ওপর আনুমানিক 14.3 কোটি অ্যাকাউন্ট ভুয়া হতে পারে বা তাদের মধ্যে দুটি প্রধান খণ্ড ভারত ও তুরস্ক। আজ এই পর্যন্ত। । আশা করি আমার পোস্ট টি আপনাদের কাজে লাগবে।। পুরো পোস্ট টি পড়ার জন্য অশেষ ধন্যবাদ। (881)

Share Button
  

FavoriteLoadingপ্রিয় যুক্ত করুন

এলার্ম বিভাগঃ ফেইসবুক

এলার্ম ট্যাগ সমূহঃ > >

Ads by Techalarm tAds

এলার্মেন্ট করুন

You must be Logged in to post comment.

© টেকএলার্মবিডি।সবচেয়ে বড় বাংলা টিউটোরিয়াল এবং ব্লগ | সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত

জেগে উঠো প্রযুক্তি ডাকছে হাতছানি দিয়ে!!!


Facebook Icon